গর্ভবস্থায় কোন কোন ব্যয়াম গুলো করবেন

গর্ভবতী মা এবং শিশুর সুস্থ ও স্বাস্থ্যকর থাকার জন্য নির্দেশিত ব্যায়াম সমূহ রয়েছে। তবে, আপনার ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করে আপনার প্রতিটি নিয়মিত ব্যায়ামের মাত্রা এবং প্রক্রিয়া নির্ধারণ করা উচিত। সাধারণত, গর্ভাবস্থায় নিম্নোক্ত ব্যায়ামগুলো করা উচিত:

  1. হাঁটা: প্রতিদিন সামান্য হাঁটা করা গর্ভবতী মা এবং শিশুর জন্য ভালো। স্বাস্থ্যকর এবং কম প্রযুক্তিবিদ সময়ে আল্পদৈর্ঘ্যের হাঁটা করতে পারেন।
  2. প্রিনাটাল যোগাসন: গর্ভবতী মা জন্য নির্দেশিত যোগাসন সমূহ রয়েছে, যা তাদের শরীর ও মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য সুস্থ হতে সাহায্য করে।
  3. প্রাণায়াম ব্যায়াম: গর্ভাবস্থায় প্রাণায়াম ব্যায়াম অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হতে পারে। শাঁসের ব্যায়াম, অনুলোম বিলোম, ব্রহ্মরুন প্রাণায়াম ইত্যাদি অনেক গর্ভাবস্থা বেশী সময় করা যাবে।
  4. পুরনো ব্যায়াম: গর্ভবতী মা এবং শিশুর স্বাস্থ্যের জন্য পুরনো ব্যায়াম ব্যাপকভাবে নির্দেশিত হতে পারে। তাদের স্বাস্থ্যকর ও সুস্থ থাকার জন্য শরীরের সামান্য অংশের উজ্জ্বলতা ও চাপ নিয়ে স্বাস্থ্য পরিচালনার উদ্দেশ্যে পুরনো ব্যায়াম সমূহ সহায়ক হতে পারে।

এই ব্যায়াম সমূহের মাধ্যমে গর্ভবতী মা তার শরীরে প্রয়োজনীয় শক্তি এবং পুষ্টি অর্জন করতে পারেন এবং গর্ভধারণের প্রস্তুতি এবং জন্মের প্রস্তুতি করতে সাহায্য করতে পারেন। তবে, আপনার ডাক্তারের সাথে আলাপ করে নিয়মিত ব্যায়ামের মাত্রা এবং ধরন নির্ধারণ করা উচিত।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top